নারী বাধ্য করার ধূলা পড়া  মন্ত্র

নারী বাধ্য করার ধূলা পড়া  মন্ত্রঃ

হ্যালো ভিউয়ারস্ লজ্জাতুন নেছা.কম এর পক্ষ্য থেকে সকলকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন। আমাদের আজকের বিষয় যেকোন নারী বা স্ত্রী বশিকরন। আপনার হয়তো আপনার হয়তো এমন কোন নারীকে একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজে প্রয়োজন কিন্তু সে আপনার কথায় কোন সাড়া বা গুরুত্ব দেয় না তাহলে আপনি এমতাবস্থায় নিম্ন লিখিত প্রয়োগ টি কাজে লাগাতে পারবেন। নিচের মন্ত্রটি অতি সহজ ও সাবলীল তাই যে কেউ প্রয়োগ করতে পারবেন। ইহা ছাড়াও এই মন্ত্রটি যেকোন নারীর উপরে প্রয়োগ করে তাকে বশীভূত করে বিবাহ করা যাবে। আমাদের একটাই অনুরোধ উক্ত প্রয়োগটি কেউ কোন খারাপ উদ্দেশ্যে প্রয়োগ করবেন না। তাহলে প্রয়োগ টি দেখে নেওয়া যাক-

মন্ত্র যথাঃ-

“কুয়েতে নইয়া দুলা

যাহার নাম ভাঙ্গা ছিটাই।

না হেলে যদি তাহারা মন

দোহাই লাগে দেব ধর্ম্মের

মা চন্ডীর মাথা খাও।”

প্রয়োগ নিয়মঃ উপরোক্ত মন্ত্রটি অন্যান্য মন্ত্রের ন্যায় মুখস্ত করিতে হইবে। যাহাকে বাধ্য করিতে ইচ্ছা তাহার নাম পায়ের বৃদ্ধ আঙ্গুলের নীচের ধূলি শনিবার দিন লইয়া মন্ত্রটি তিন দফা পাঠ করিয়া ধুলির মধ্যে ফুঁক দিয়া তাহার গায়ে ছিটাইয়া দিবে। ইহাতে যাহার গাঁয়ে ধূলা ছিটাইয়া দেওয়া হইল সে তদবীরকারীর বাধ্য হইয়া যাইবে। উক্ত মন্ত্রের মধ্যে যেখানে যাহার নাম লেখা আছে সেখানে মেয়ের নাম পড়িতে হইবে। বিবাহিতা স্ত্রীর বেলায় মন্ত্রটি প্রযোজ্য।

(উক্ত প্রয়োগ টি করার পূর্বে অবশ্যই কোন সিদ্ধ গুরুর অনুমতি গ্রহণ করিতে হইবে। যদি কোন সিদ্ধ গুরুর অনুমতি সংগ্রহ করতে না পারেন তাহলে অবশ্যই আমাদের মোবাইল এ্যডমিনের সাথে যোগাযোগ করুন ধন্যবাদ সবাইকে)

{লজ্জাতুন নেছা, কোকা পন্ডিতের বৃহৎ ইন্দ্রজাল, তন্ত্র মন্ত্র এবং বশিকরনে কালা জাদু বই গুলি ফ্রিতে পেতে চাইলে নিচের লেখা বা ছবিতে ক্লিক করুন ও বই গুলি লুফে নিন ধন্যবাদ}