নির্বাচনে বিজয় লাভের তদবীর

নির্বাচনে বিজয় লাভের তদবীরঃ

হ্যালো ভিউয়ারস্ আমাদের আজকের আলোচনা একটু ভিন্ন ধরনের কারণ কিছু নিয়মিত ভিজিটরদের অনুরোধের কারণেই আমাদের আজকের এই আলোচনা। টাইটেল দেখেই হয়তো সবাই বুঝতে পেরেছেন যে, আজকের আলোচনার মুখ্য বিষয়টি কি!!

আমাদের আজকের আলোচনা হচ্ছেঃ- নির্বাচনে বিজয় লাভের তদবীরঃ-

আমরা সবাই জানি বিভিন্ন রকম সমস্যার সমাধান করা যায় তন্ত্র মন্ত্র প্রয়োগের মাধ্যমে, তবে রাজনৈতিক কাজে কি কোনভাবে তন্ত্র মন্ত্র  প্রয়োগ করা সম্ভব? এর উত্তর হয়তো সবাই জানেন কারণ রাজনৈতিক ক্রিয়া কর্ম ও ফলাফল আসে শুধু মাত্র জনগণের ভোটের মাধ্যমে। আপনাকে যদি ভোটাররা ভোট দেয় তাহলেই আপনি জয়ী হবেন। কয়েক জন বিরুদ্ধ প্রতিযোগী নেতাদের হারিয়ে দিয়েই কিন্তু আপনাকে জয় লাভ করতে হবে, এটাই বাস্তব। নির্বাচনের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে কিভাবে ভোটারদের নিজের প্রতি আকৃষ্ট করা যায়। আপনি যদি অনেক বৃত্তশালী ও ধনসম্পদ ওয়ালা লোক ও হয়ে থাকেন। তবুও আপনি শিওর হতে পারবেন না যে, আপনার রেজাল্ট ফলাফলের দিনে কেমন হবে। তাই আপনাকে একটা কথা মাথায় রাখতে হবে। শুধু টাকা দিয়ে নয় মানুষের মনটাকে বেঁধে রাখাটাই মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। যেন কোন ভাবেই মানুষজন পল্টি না খায়। অনেকের ক্ষেত্রে দেখা গেছে, নির্বাচনের একমাস আগে সেই নেতার পিছনে লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ আর নির্বাচনের শেষ মুহূর্তে এসে দেখা গেছে তার পিছনে মানুষ তো দূরের কথা অন্যদের তুলনায় ১০ ভাগের ২ ভাগ ভোটও পড়ে নি তার বাক্সে। দেখবেন আপনার আশে পাশে থাকা ও সারাক্ষন আপনাকে সার্পোট দিয়েছে যেসকল লোক, ঠিক ভোটের দুই একদিন আগেই তাদেরকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তারা আবার বিক্রি হয়ে গেছে অন্যদের কাছে, এমতা বস্থায় আপনি কি করবেন আপনার মাথা প্রায়ই নষ্ট হয়ে যাবার মতো অবস্থা। তাই বলি বিভিন্ন দেশের রাজনৈতিক নেতাগন কোন না কোন তান্ত্রিক বা পীর বাবার কাছে প্রায়ই কেন যান, অবশ্যই সেখানে তাদের কোননা কোন উদ্দেশ্য থাকে। এটার একটাই উদ্দেশ্য যেটাতে কোন ফল পাওয়া যায়। যেমন ভারতের বর্তমান প্রধান মন্ত্রী নরেদ্র মোদি এক সাধু বাবার আশ্রয় গ্রহণ করেন। কারণ একজন রাজনৈতিক নেতার পক্ষ্যে কখনো সম্ভব নয়, তার নিজের ভুল ত্রুটি গুলোকে খুজে বের করা। তাই কেবল মাত্র একজন তান্ত্রিক বা জৌত্যিষিই পারেন তার সকল সমস্যা সমাধান করতে। একজন তান্ত্রিক পারে শুধু মাত্র একটা তদবীর করে আপনার সকল ভোটারদেরকে আপনার প্রতি আকৃষ্ট করে দিতে। তাই এই কথা ভেবেই ভারতের প্রধান মন্ত্রী নরেদ্র মোদি একজন তান্ত্রিকের আশ্রয় গ্রহণ করেন। বর্তমানে এশিয়া মহাদেশের বিভিন্ন দেশে নির্বাচন চলতেছে, বিশেষ করে বাংলাদেশে নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে। তাই আপনি যদি বাংলাদেশের  Membar of Parliament (এমপি) পদে যদি কোন আসন গ্রহণ করার ইচ্ছে পোষণ করেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে ভোটারদেরকে আপনার প্রতি আকৃষ্ট করতে হবে। যদি না আপনি তাদেরকে আকৃষ্ট করতে পারেন, তাহলে দেখবেন ফলাফলের বেলায় মাত্র (০১০%) ভোট পেয়ে সর্বনিম্ন স্থানে রয়েছেন। তাই বলি এখনো সময় আছে আপনি কোন না কোন তান্ত্রিক এর সরাপন্ন হয়ে যান ও তার কাছ থেকে সঠিক গাইড লাইন নিয়ে নিন। যেভাবেই হোক আপনার সব ভোটারদেরকে যেন আকর্ষিত করা যায়।  তারা যেন আপনাকে কথা দিয়ে আর অন্য কাউকে ভোট না দেয়, সেই ব্যবস্থাই করতে হবে। তাই আপনি যেকোন একজন সিদ্ধগুরুর সরনাপন্ন হয়ে যান সময় থাকতেই। আর যদি কোন তান্ত্রিকের বা সিদ্ধগুরুর দেখা না পান তাহলে অবশ্যই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।। আমাদের কাজ হবে আপনি যেসকল এলাকায় ঘুরে বেড়াবেন এবং মানুষের কাছে ভোট চাইবেন আমরা ঠিক সেই সকল লোকগুলোকে আপনার প্রতি আকৃষ্ট করে দিবো আর তারা অন্য কোন প্রার্থীর দিকে মুখ তুলে ও তাকাবে না। আপনার নির্বাচনী এলাকায় যদি ২ লক্ষ্য ভোটার থাকে তবে আপনাকে ১ লক্ষ্য ভোটারদের সাথে দেখা করতে হবে। কারণ আপনার লক্ষ্য থাকবে মাত্র এক লক্ষ্য ভোটারের প্রতি আর বাকি এক লক্ষ্য ভোটারদের অন্য ৪ প্রার্থীগণ ভাগাভাগী করে নিবে। তাই আপনার এক লক্ষ্য ভোটারের ভোট যথেষ্ট। তাই আপনার লক্ষ্য থাকবে এক লক্ষ্য ভোটারের ভোট পাওয়া। এই সকল সেবা শুধু মাত্র  আমরা পেমেন্টে ও কন্ডিশন মোতাবেক কাজ করে থাকি।। তাই যদি আপনারা নির্বাচনে জয়ী হতে চান ও আপনার এলাকার ভোটারদের আকৃষ্ট করে তাদের ভোটগুলো পেতে চান তাহলে আর দেরী না করে আজই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

বিঃদ্রঃ- এই আলোচনাটি হয়তো অনেক ভিজিটরগণ পড়বেন ও দেখবেন। কিন্তু আপনাদের হয়তো এই আলোচানটি কোন কাজে আসবে না। আপনাদের কাছে আমাদের একটাই অনুরোধ, আমরা হয়তো কোন নেতা বা প্রার্থীর নিকট এই আলোচনাটি পৌঁছায় দিতে পারবো না। তাই আপনারা একটু কষ্ট করে আপনার এলাকার প্রার্থীদের কাছে আমাদের এই আলোচনাটি শেয়ার করুন ও তাদেরকে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার সুযোগ করে দিন। ধন্যবাদ।।

Email-admin@lojjatunnesa.com

Mobile no-01767296990

{বিঃদ্রঃ- আপনি যদি লজ্জাতুন নেছা বইটি সংগ্রহ করেন, তাহলে আপনার পার্শোনাল সমস্যা গুলো আপনি নিজেই সমাধান করতে সক্ষম হবেন তাই আর দেরি না করে আমাদের মোবাইল এ্যডমিনের সাথে এখনি যোগাযোগ করে বইটি ক্রয় করুন। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন আমাদের মোবাইল এ্যডমিন আপনার কাছে বইটি পাঠিয়ে দিবে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে... ধন্যবাদ}