পরম শত্রুকে মারার উপায়

পরম শত্রুকে মারার উপায়ঃ

মারণ কর্ম বলতে বোঝায় কাউকে শাস্তি দিয়ে মেরে ফেলা বা হত্যা করা কিংবা মৃত্যুর মুখে কাউকে পতিত করা। এই কর্ম বা প্রয়োগ টি ভেবে চিন্তে করতে বা ব্যবহার করাই সাধকের অবশ্যক বলে আমি মনে করি। তবে আপনি যদি কোন শত্রুর ভয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। অথবা আপনার অনেক টাকা পয়সা রয়েছে সেই টাকা পয়সার কারনে আপনার পিছনে অনেক শত্রুর আনাগোনা দেখা দিচ্ছে, আপনি আপনার শত্রুর প্রতি কিছুতেই কোন ভাবে পেরে উঠতে পারছেন না। কোনভাবেই কাউকে বলতেও পারছেন না। কিভাবে আপনি রক্ষা করবেন আপনাকে শত্রুর হাত থেকে, ভেবে উঠতে পারছেন না। তাহলে আপনি এই প্রক্রিয়াটি ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এই প্রক্রিয়াটি খুবই শক্তিশালী ও ফলপ্রদ এই কাজ। তাই আপনারা ভেবে চিন্তে কাজে লাগাবেন ও বিনা অপরাধে কারোও উপর প্রয়োগ করবেন না। এটাই আমার অনুরোধ। কোথায় যদি বুঝতে অসুবিধে হয় তবে আমাদের যোগাযোগ পেইজে গিয়ে ইমেইল অথবা মোবাইল এ্যডমিনের সাথে যোগাযোগ করুন ধন্যবাদ।
মন্ত্রঃ-“ওঁ নমো নরসিংহায় কপিশ জটায়, অমোঘ-বাচা সতত বৃত্তান্ত মহোগ্ররুপায়। ওঁ হ্লীং হ্লীং ক্ষাং ক্ষীং ক্ষীং ফট্ স্বাহা।।”
অমাবস্যার রাত্রে নির্জনে বসে ১০,০০০ (দশ হাজার) বার জপ করলে মন্ত্র সিদ্ধ হয়।
১। অতঃপর ১০০০ (এক হাজার) বার রক্ত বর্ণ পুষ্প নিয়ে ঘৃতের সঙ্গে কোবিদার মিশ্রিত করে উক্ত সিদ্ধ মন্ত্র দ্বারা হোম করলে শত্রুর মৃত্যু হয়।
২। মানুষের (মড়ার) অস্থি চূর্ণ করে উপরোক্ত সিদ্ধ মন্ত্র দ্বারা ১০৮ বার অভিমন্ত্রিত করে পানের সঙ্গে শত্রুকে খাওয়ালে তার মৃত্যু হয়।
৩। কালো ধুতুরার বীজ চূর্ন করে তার সঙ্গে চিতাভস্ম মিশিয়ে মঙ্গলবার উক্ত সিদ্ধ মন্ত্রে ১০৮ বার অভিমন্ত্রিত করে শত্রুর গায়ে ছড়িয়ে দিলে তার মৃত্যু হয়।

{লজ্জাতুন নেছা, কোকা পন্ডিতের বৃহৎ ইন্দ্রজাল, তন্ত্র মন্ত্র এবং বশিকরনে কালা জাদু বই গুলি ফ্রিতে পেতে চাইলে নিচের লেখা বা ছবিতে ক্লিক করুন ও বই গুলি লুফে নিন ধন্যবাদ}