প্রমেহ রোগে মূর্ব্বা মূলের ব্যবহার

প্রমেহ রোগে মূর্ব্বা মূলের ব্যবহারঃ

“মা ব্রুয়াৎ সত্যমপ্রিয়ং” অর্থাৎ অপ্রিয় হলে সত্য কথাও বলতে নেই-

এই নীতি অনুসরণ করতে করতে আমাদের ভাষায় অথবা সংস্কারে কিংবা সমাজজিবনে জগাখিচুড়ি পাকিয়ে বসে আছি। বর্তমানে এখনো বিভিন্ন এলাকার বয়স্ক জ্ঞানী মানুষ গণ বিভিন্ন গাছ পালার দ্বারা উপকৃত হচ্ছে ও তারা বিভিন্ন পুরাতন রোগ হতে নিজে মুক্তি পাচ্ছেন ও অপরকে রোগ থেকে মুক্তিলাবে সাহায্য করছে। আমাদের আজকের বিষয় মূর্ব্বা গাছের মূল দ্বারা কিভাবে মেহ ও প্রমেহ দূর করা যায়। তো চলুন তাহলে দেখে নিই-

প্রমেহ রোগ নিরাময়ে মূর্ব্বা মূলের অশেষ গুনাগুনঃ

এই রোগটির কথা আমাদের ওয়েব সাইটে বিভিন্ন আলোচনায় শেয়ার করা হয়েছে। তবুও বলি, একটু ঘোলাটে প্রস্রাব, কোঁথ দিলেই লালার মত পড়া, মেয়েদের হলে হড়হড়ে অবস্থা এবং যোনিস্থানে একটা সাদা পাতলা সরের মত পড়া, এ অবস্থায় মূর্বা মূল ১০ গ্রাম বেটে, তাকে নিংড়ে রস বের করে নিতে হবে, এবং তার সঙ্গে আধ কাপ আন্দাজ পানি ও একটু চিনি মিশিয়ে সরবতের মতো খেতে হবে। ২-৩ দিনের মধ্যেই উপশম হবে। তারপর কয়েক দিন খেতে হবে। যদি আপনি এই গাছ টি না চিনে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনার জানা কোন মুরব্বীর কাছ থেকে চিনে নিবেন। আর যদি তাও সম্ভব না হয়। তাহলে আমাদের ঔষুধ গুলো সংগ্রহ করতে পারেন। মেহ ও প্রমেহ দূর করা জন্য মা’জুন আরদে খোরমা বিশেষ কার্যকারী ও এই ঔষুধ টির মাধ্যমে আপনি আপনার যৌন জিবনকে আরো দীর্ঘস্থায়ী করতে পারবেন। আমাদের ঔষুধ গুলো বিভিন্ন ভেজষ উদ্ভিদ দ্বারা তৈরি এবং এই ঔষুধগুলো সেবনে আপনারা পুরাতন রোগ  হতে মুক্তি পাবেন ও সুস্থ্য জিবন কাটাবেন বলে আমরা আশা করছি।

[আমাদের ঔষুধ গুলো ক্রয় করতে চাইলে কিংবা দেখতে চাইলে নিচের লেখাটিতে টাচ্ করুন। ধন্যবাদ।]

ঔষুধ সমূহ

{বিঃদ্রঃ- আপনি যদি লজ্জাতুন নেছা বইটি সংগ্রহ করেন, তাহলে আপনার পার্শোনাল সমস্যা গুলো আপনি নিজেই সমাধান করতে সক্ষম হবেন তাই আর দেরি না করে আমাদের মোবাইল এ্যডমিনের সাথে এখনি যোগাযোগ করে বইটি ক্রয় করুন। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন আমাদের মোবাইল এ্যডমিন আপনার কাছে বইটি পাঠিয়ে দিবে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে... ধন্যবাদ}