বেইমান স্বামীকে বিশ্বস্ত করার তদবীরঃ

বেইমান স্বামীকে বিশ্বস্ত করার তদবীরঃ

যদি কাহারো স্ত্রী এই কারণে দুখি হয় যে তার স্বামী পরস্ত্রীতে আসক্ত বা বাজারের মেয়েছেলের পেছনে টাকা ওড়াচ্ছে এবং ঘরের কথা ভাবছে না এমনকি নিজের ছেলেমেয়ের কথাও ভাবছে না এবং তাদের খাওয়া-দাওয়া ও দিচ্ছে না। ঠিক মতো পোষাক আশাক পারাতে দিচ্ছে না। তখন এই নকশাটি এ ব্যাপারে খুবই ফলদায়ক হবে।

নকশাটি এইঃ-

এই নকশাটি সাদা কাগজে কালো কালিতে লিখতে হবে। লেখার আগে “বিস্‌মিল্লাহ্‌” শব্দটি বলতে হবে। এবার লেখা নকশাটি তাবিজ বানিয়ে বাঁ হাতে বাঁধতে হবে এর প্রভাবে এবং উপরওয়ালার কৃপায় উক্ত স্বামী তার ভুল বুঝতে পারবে এবং অসৎ সংসর্গ ছেড়ে নিজের স্ত্রীর প্রতি মনোযোগী হবে।

স্ত্রীকে খুব ভালবাসবে, বাচ্চাদের লালন-পালনে মন দেবে। রোগগারের টাকা ঘরের প্রয়োজনে খরচ করবে। বাজারের খারাপ নারী বা পরস্ত্রীর দিকে চোখ বা লোভ লালসা থাকবে না। তাদের থেকে সবসময় দূরে থাকার চেষ্টা করবে। এইভাবে উক্ত স্ত্রীর দুঃখ দূর হবে এবং আরামের সঙ্গে জীবন কাঁটবে।

বিঃদ্রঃ- উপরোক্ত নকশাটি ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ও হাদিয়া প্রদান করুন তারপর অনুমতি গ্রহণ করুন ও কাজটি সমপন্ন করতে সঠিক নিয়ম কানুন গুলো আমাদের কাছে জেনে নিন।। তার কারন হাদিয়া ও অনুমতি ছাড়া এই প্রয়োগটি করে কোন রকম ফল আশা করাটা বৃথাই মাত্র।

{বিঃদ্রঃ- আপনি যদি লজ্জাতুন নেছা বইটি সংগ্রহ করেন, তাহলে আপনার পার্শোনাল সমস্যা গুলো আপনি নিজেই সমাধান করতে সক্ষম হবেন তাই আর দেরি না করে আমাদের মোবাইল এ্যডমিনের সাথে এখনি যোগাযোগ করে বইটি ক্রয় করুন। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন আমাদের মোবাইল এ্যডমিন আপনার কাছে বইটি পাঠিয়ে দিবে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে... ধন্যবাদ} ***লজ্জাতুন নেছা বইটি ১-৭ খন্ড ফ্রিতে পেতে চাইলে এখুনি উপরের এ্যড টিতে ক্লিক করুন***