ব্রেকআপ হয়ে যাওয়া প্রেম ফিরে পাওয়ার উপায়ঃ

ব্রেকআপ হয়ে যাওয়া প্রেম ফিরে পাওয়ার উপায়ঃ

লজ্জাতুন নেছা ওয়েব সাইটের পক্ষ্য থেকে আপনাদের সকলকে স্বাগতম। অনেকের দিক পর্যালোচনা করে আমাদের আজকের বিষয়। ব্রেকআপ হয়ে যাওয়া প্রেম ফিরে পাওয়ার উপায়ঃ- অনেকেই ফোন করে বলতেছেন- আমি একজনের সাথে দীর্ঘদিন ধরে সম্পর্ক করেছিলাম। কিন্তু কিছু দিন ধরে সে আর আমার সাথে ঠিক মতো কথা বা দেখা করে করে না। মনে হয় সে আমাকে ভুলে যাচ্ছে। আবার অনেকের ক্ষেত্রে এমন হয়েছে যে, হাল্কা বয়সের মেয়েদের বিয়ে করেছে কিন্তু সাংসারিক চাপের কারণে সেই মেয়ে বা বালিকা শশুর শাশুড়ীর সাথে বিভিন্ন সাংসারিক ঝামেলার কারণে বাবার বাড়িতে গিয়ে আর ফিরে আসে না বা তার বাবা মা আর তাদের মেয়েকে পাঠাতে চায় না। এই দুই রকমের সমস্যা হয়ে থাকলে আপনারা নিচের তদবীর টি ব্যবহার করতে পারবেন। যদি একটু কঠিক তদবীর তবুও প্রয়োগ করুন ও নিজের প্রিয়তমাকে ফিরে আনুন।

বশিকরনে লবঙ্গ পড়াঃ

মন্ত্রঃ- “ওঁ জল কী জোগ্‌নী পাতাল কা নাগ।

জিসপে ভেজু তিসকে লাগ্।।

শোতে সুখ না ব্যয়ঠে সুখ।

ফির ফির দেখে মেরা মুখ।।

মেরী বাঁধী ঘুটে তো,

বাবা নারহসিংহ কি জটা টুটে।”

শুভদিন ও শুভমুহূর্তে শুরু করে ২১ দিন যাবৎ প্রত্যহ ১২১ বার জপ করলে, মন্ত্র সিদ্ধ হবে। তাপর ৪ টি লবঙ্গ পেষণ করে বাতাসার মধ্যে দিয়ে তাকে গুগ্‌গুলোর ধোঁয়া দিবে ও ৭ বার মন্ত্রটি মনে মনে পাঠ করে মুখের মধ্যে রাখবে। পরে মুখে জল নিয়ে মুখের এদিক ও দিক  ফিরিয়ে মুখ থেকে বাতাসা বের করে, আবার তাতে গুগ্‌গুলের ধোঁয়া দিয়ে সেটা পানের মধ্যে বা যে কোনও প্রকারে খাওয়ালে, সেই পুরুষ বা নারী বশীভূত হবে।

বিঃদ্রঃ- উক্ত প্রয়োগের পূর্বে অবশ্যই কোন সিদ্ধ গুরুর অনুমতি গ্রহণ করতে হবে। যদি কারোর এই প্রয়োগ টি করতে অসুবিধা হয় বা কঠিন মনে হয় তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরা আপনার প্রিয়তমাকে ফিরে পাবার জন্য হেল্প করবো। ধন্যবাদ।

{বিঃদ্রঃ- আপনি যদি লজ্জাতুন নেছা বইটি সংগ্রহ করেন, তাহলে আপনার পার্শোনাল সমস্যা গুলো আপনি নিজেই সমাধান করতে সক্ষম হবেন তাই আর দেরি না করে আমাদের মোবাইল এ্যডমিনের সাথে এখনি যোগাযোগ করে বইটি ক্রয় করুন। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন আমাদের মোবাইল এ্যডমিন আপনার কাছে বইটি পাঠিয়ে দিবে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে... ধন্যবাদ}