মেয়ে ভুলানী নজর বন্দী মন্ত্র

মেয়ে ভুলানী নজর বন্দী মন্ত্রঃ

আপনার মনের মানুষটির পিছন পিছন ঘুরে হয়তো আপনি আজ অনেকটাই ক্লান্ত হয়ে পড়েছেন। তাই আর দেরি না করে নিচের মন্ত্র টি কাজে লাগিয়ে নিজের মনের মানুষটিকে নিজের বশীভূত করুন। কাজটি সঠিক ভাবে প্রয়োগ করার ফলে দেখবেন সেই নিজে থেকেই আপনার পিছন পিছন ঘুরতেছে এবং আপনাকে যথাযথ সময় দিয়ে প্রেম নিবেদন করতেছে। চলুন তাহলে মন্ত্রটি ও তার প্রয়োগ বিধি সম্পর্কে জানা যাক-
“অচল ঘাটের নিশ্চল পানি
তাহার উপজিত কালের বাঘিনী
কালের বাঘিনী বলেন তোরে
…………পাঁচ আত্তা পাঁচ প্রান
আনিয়াদে মোরে
মাছের পিত্ত, হরিনীর পিত্ত
তৈল করিয়া পোরাইম
………….. পাঁচ চিত্ত”

উপরোক্ত মন্ত্রটি প্রথমে কোন স্বিদ্ধ গুরুর নিকট থেকে অনুমতি প্রাপ্ত হয়ে মুখস্থ করে নিতে হবে। তার পর যখন কাজে লাগাবে তখন নদীর ধারে গিয়ে নদীর পাকের পানি এক দমে উপরে আনতে হবে এবঙ সেই পানি বাড়িতে এনে উক্ত মন্ত্র ৭-১১ বার জপ করে পানিতে ফুক দিতে হবে তারপর সেই পানি কাঙ্খিত মেয়ের গায়ে ছিটিয়ে দিতে হবে হবে এবঙ সম্ভব হলে কিছু পানি মেয়েটাকে খাওয়াতে হবে। তাইলে মেয়েটি সাধকের বশিভুত হবে।

মেয়ে বশিকরন (মুসলিম মন্ত্র)

মন্ত্র:“ফাসা ইয়াকফিকা’হুমুল্লাহু ওয়া হুওয়াস সামিউল আলিমি

উক্ত মন্ত্র পানের উপর লিখে বা ফু দিয়ে কাউকে খাওয়ালে সে যে খাওয়াবে তার প্রেমে পাগল হবে।।

আমাদের কথাঃ আপনারা যাহারা এসব কাজ করতে পারবেন না। কিংবা আপনি কোন অফিসের বড় একজন অফিসার। আমার মনে হয় তাহারা এই কাজ করতে অক্ষম হয়ে পড়বেন। তাই আপনারা আমাদের মাধ্যমেও কাজ গুলো করাতে পারেন। শুধু যাহারা একান্তই প্রিয়জনকে কাছে পেতে চান শুধু তারাই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।।। ধন্যবাদ।।।