যেকাউকে আপন করে পাওয়ার উপায়

সারা জীবনের জন্য বশীকরণ করে কাছে পাওয়ার উপায়ঃ

আপনি যদি কাউকে সারা জিবনের জন্য, জীবন সঙ্গিনী করতে চান তাহলে অবশ্যই নিচের প্রয়োগটি করতে ভুলবেন না।।

মাদুলী পড়াঃ

মন্ত্রঃ-

“অষ্টধাতু এক করিলাম বিশাইয়ের হাতে।

অষ্টমঙ্গলার বরে মাদুলী পড়লাম হাতে।।

আমার এই মাদুলী পড়ায় অমুকীর লাগে অঙ্গে।

আমার নিকটে আসে সে কত রঙ্গে ভঙ্গে।।
অষ্টধাতুর মাদুলী এ যে অন্য কিছু নয়।

টানিয়া আনিবে সে যে নাহিক উপায়।।

চাঁদ আর সূর্য্য যদি আকাশ থেকে খসে।

আমাকে ছাড়িয়ে তার মন অপরে না ব’সে।।

বিশ্বের যোগীর আজ্ঞা অন্য কার নয়।

লাগবে অষ্ট ধাতুর মাদুলী লাগ্ লাগ্ লাগ্।।”

প্রয়োগ বিধিঃ- শনিবারে অমাবস্যা পাইলেই সেই আমাবস্যার ভিতর কর্ম কারের নিকট হইতে একটি অষ্টধাতুর মাদুলী প্রস্তুত করাইয়া কোন কুমারী কন্যার দ্বারা এলোসুতা সাতখি করিয়া পাকাইয়া কোন কন্যার দ্বারা এলোসুতা সাতখি করিয়া পাকাইয়া ঐ সুতা দিয়া মাদুলীটি দক্ষিন হস্তে ধারন করিবে । পরে ঐ অমাবস্যার ভিতরে ঋতু মতী কোন নারিকে দেখিয়া তাহাকে মনে মনে মানস করিয়া রাখিবে এবংপর অমাবস্যার দিন তাহার সহিত সাক্ষাত করিয়া মনে মনে উক্ত মন্ত্র পাঠ র্পূবক তাহার হস্ত ধারন করিবে । এইরূপ করিলে সেই নারী যাবজ্জীবন বশীভূবন বশীভূত হইয়া থাকিবে ।

বিঃদ্রঃ- উপরোক্ত প্রয়োগ টি কাজে খাটানোর আগে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ও অনুমতি গ্রহন করুন।। ধন্যবাদ।।

(প্রিয় ভিজিটরগণ এই মন্ত্র টি হয়তো আপনারা দেখেই বুঝতে পেরেছেন যে, কত সহজ ও সাবলীল যে কেউ এই মন্ত্রটি কাজে লাগাতে পারবেন। এই মন্ত্রটি সংগ্রহ করা হয়েছে আমাদের প্রাপ্ত বয়স্কা তান্ত্রিক মহাদয়ের একটি পুস্তক থেকে- (লোক চিকিৎসায় তন্ত্র-মন্ত্র) বই থেকে। আপনারা চাইলে এই বইটি ক্রয় করে নিজের কাজ গুলি নিজে নিজেই করতে পারবেন। আমরা আপনাদের অনুমতি প্রদান করবো ও প্রতিটি কাজের পূর্বে সহযোগীতা করবো। ধন্যবাদ।)