যেকোন নারীকে বশ করার খুব সহজ ১টি মন্ত্র

যেকোন নারীকে বশ করার খুব সহজ ১টি মন্ত্রঃ

হ্যালো ভিউয়ারস্ লজ্জাতুন নেছা.কম এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন। আজ আমরা আপনাদের সামনে স্ত্রী বশীকরণ মন্ত্র এর নতুন একটি প্রয়োগ পদ্ধতি সম্পর্কে তুলে ধরব। এর পূর্বেও আমরা স্ত্রী বশীকরণ মন্ত্র সম্পর্কে আপনাদেরকে দেখিয়েছি। আজও আমরা একটি নতুন প্রয়োগ পদ্ধতি সম্পর্কে আপনাদের সামনে তুলে ধরবো। এই পদ্ধতি প্রয়োগ করে আপনি খুব সহজেই আপনার স্ত্রীকে বাধ্য হতো করতে পারবেন। আজ আমরা আপনাদের সামনে যে মন্ত্র সম্পর্কে আলোচনা করব এই মন্ত্রটি শুধুমাত্র আপনারা স্ত্রী বশীকরণ এর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে তাছাড়া অন্য কোন ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করা যাবে না। এমন অনেক পরিবার আছে যেখানে স্ত্রী স্বামীকে পছন্দ করে না বা সহ্য করতে পারে না বা স্ত্রী অন্য কোন কাউকে পছন্দ করে থাকে বা স্ত্রী তার স্বামীর কথা মত চলে না তাহলে সেক্ষেত্রে স্বামী চাইলে তাদের দিকে এই মন্ত্র প্রয়োগের মাধ্যমে বাধ্যগত করতে পারেন।

তাহলে চলুন আমরা প্রথমে মন্ত্র টি দেখে নেই-

“ওহম নমো ভগবতী মঙ্গলেশ্বরী সর্বসুখরা।

জিতী সর্বধর মাতেঙ্গী কুমারী কে লঘু-লঘু।

বশং কুরু কুরু স্বাহা।”

প্রয়োজনীয় সামগ্রী: এই বশীকরণ মন্ত্র টি প্রয়োগ করার জন্য শুধুমাত্র আপনাদের কে সংগ্রহ করতে হবে সহদেবী।

নিয়ম কানুন: মন্ত্রটি প্রথমে আপনারা খুব ভালোভাবে আগে মুখস্ত করে নেবেন তারপর আপনারা মন্ত্র সিদ্ধ করে নেবেন। অবশ্যই মন্ত্র সিদ্ধ করার আগে মন্ত্রটি খুব ভালোভাবে মুখস্থ করবেন তা না হলে মন্ত্র উচ্চারণে যদি ভুল হয় তাহলে আপনারা যত এটি প্রয়োগ করুন না কেন আপনাদের কোনো ফলাফল আসবে না। এজন্য প্রথমে আগে মন্ত্র টি খুব ভালোভাবে মুখস্থ করে নিন। মন্ত্রটি সিদ্ধ করে নেবার জন্য আপনারা মঙ্গলবার দিন 1000 বার যে কোন একটু ভালো সময় নির্ধারণ করে পাক পবিত্রতা বজায় রেখে পাঠ করুন। তাহলে মন্ত্র টি সিদ্ধ হয়ে যাবে তখন আপনারা মন্ত্রটি প্রয়োজনে প্রয়োগ করতে পারবেন।

প্রয়োগ বিধি: মন্ত্রটি খুব ভালোভাবে সিদ্ধ করে নেয়া হয়ে গেলে তারপর আপনি এটি প্রয়োগ করতে পারবেন। এটি প্রয়োগ করার জন্য আপনাকে কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী বা চতুর্দশী তিথিতে সারাদিন ব্রত পালন করে ছবি তুলে এনে তাকে চুদলো করে উক্ত মন্ত্রে অভিমন্ত্রিত করে ওই জন্য যে স্ত্রী লোককে খাওয়ানো যাবে সে তার বশীভূত হবে। উক্ত মন্ত্রটি 108 বার পাঠ করতে হবে। সেইসাথে উক্ত চূর্ণ স্ত্রীর মাথায় যদি দেয়া যায় তাহলে সে তার বশীভূত হয়ে যাবে।

আপনাদের যদি কোন ধরনের প্রশ্ন থেকে থাকে আমাদের এই আলোচনা সম্পর্কে তাহলে আপনি আমাদের এই ওয়েবসাইটে আলাপন নামে যে অপশন রয়েছে সেখানে গিয়ে আপনি আমাদেরকে ইমেইল করতে পারেন বা আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন বা আমাদের সাথে আপনি সরাসরি কথা বলতে পারেন।

বি. দ্র: অসৎ কোনো উদ্দেশ্য বা চিন্তা ভাবনা নিয়ে কখনোই এই ধরনের কাজ করতে যাবে না তাহলে আপনি নিজে বিপদগ্রস্ত হবেন। যদি কেউ আমাদের মাধ্যমে কাউকে বশিকরন করতে চান তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। ধন্যবাদ।।

[metaslider id=81]