যেকোন বিবাহিতা বা অবিবাহিতা নারী পুরুষকে বশীকরণ করুন

শুধুমাত্র একটি রাতেই বশ করুন যেকোন বিবাহিতা বা অবিবাহিতা নারী বা পুরুষকেঃ

হ্যালো ভিউয়ারস্ লজ্জাতুন নেছা.কম এর পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন। আজ আমরা আপনাদের সামনে ত্রিলোক্য বশীকরণ প্রয়োগ সম্পর্কে আলোচনা করব। এখানে আমরা যে বশীকরণ সম্পর্কে আলোচনা করব এটা খুবই শক্তিশালী একটি বশীকরণ।  আমরা আপনাদের সামনে যে সমস্ত বশীকরণ সম্পর্কে আলোচনা করেছি তার প্রত্যেকটি বশীকরণ শুরু করার আগে আমরা একটি কথা বলেছি যে আপনারা কখনই এটি কোন খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে ব্যবহার করবেন না তাহলে আপনি নিজে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। আজ আমরা এখানে যে বশীকরণ টি সম্পর্কে বলব এটা খুবই শক্তিশালী একটি বশীকরণ এটা আপনি যেকোনো কাজের ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করতে পারেন যেমন স্বামী স্ত্রীর মনোমালিন্য বা এমনি পারিবারিক কোনো সমস্যা অথবা দুই বন্ধুত্বের মধ্যে কোনো মনোমালিন্য হলে আপনারা সে ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন।  স্বরসতী আপনারা এই বশীকরণ টি যেকোনো কাউকে আপনারা করতে পারবেন তবে অসৎ কোন উদ্দেশ্য নিয়ে করবেননা।

 এই বশীকরণ ঠিক করতে হলে প্রথমত আপনাকে একটি মন্ত্র খুব ভালোভাবে মুখস্থ করতে হবে চলুন প্রথমে আমরা সেই মন্ত্র টি আগে দেখে নিই-

 মন্ত্রটি হচ্ছে-

“ ওঁ নমঃ ভূত ভাবন ভূতনাথ সমস্ত ভুবন সাধয় হুং ফট্ । ”

প্রয়োজনীয় সামগ্রী:  এই বশীকরণ টি করতে হলে আপনাকে যে সমস্ত সামগ্রী সংগ্রহ করতে হবে সেগুলি হচ্ছে- বশীকরণ মালা,  প্রদীপ, হকিক মালা, সাদা সুতির আসন।

নিয়ম কানুন:  অন্যান্য বারের   মত আমি এবারও আপনাদেরকে বলবো অবশ্যই প্রথমে আপনারা আগে মন্ত্র টি খুব ভালোভাবে মুখস্থ করে নেবেন তা না হলে উচ্চারণের ক্ষেত্রে যদি ভুল হয়ে থাকে তাহলে এই মন্ত্র প্রয়োগে আপনাদের কোন উপকার আসবে না।  এজন্য প্রথমে আপনারা মন্ত্রটি খুব ভালোভাবে মুখস্থ করে নিন তারপর আপনারা মন্ত্র টি ব্যবহার করুন।

এই মন্ত্রটি যখন মুখস্ত করা হয়ে যাবে তখন আপনাদের কে মন্ত্রটি সিদ্ধ করে নিতে হবে তার কারণ হচ্ছে এই মন্ত্রটি স্বয়ং সিদ্ধ মন্ত্র নয়।  মন্ত্র সিদ্ধ করার জন্য সর্বপ্রথমে শুক্রবার দিন রাত্রিবেলা পশ্চিম দিকে মুখ করে সাদা সুতির আসনে বসতে হবে তারপর আপনার সামনে প্রদীপ জ্বালিয়ে বশীকরণ মালা দিয়ে ২১০০০  বার উক্ত মন্ত্র জপ করতে হবে।  মন্ত্র যখন জব করা হয়ে যাবে তখন ওই মালা আপনি আপনার গলায় পড়বেন। এভাবে আপনাকে 21 দিন পর্যন্ত করতে হবে। তাহলে মন্ত্র টি সিদ্ধ হয়ে যাবে।

প্রয়োগ বিধি: মন্ত্রটি সিদ্ধ হয়ে যাওয়ার পর আপনি যখন এটি প্রয়োগ করবেন তখন আপনি যাকে বশীকরণ করতে চাইছেন তখন সেই ব্যক্তির দিকে মুখ করে তাকিয়ে আপনাকে উক্ত মন্ত্রটি 5 বার পড়ে ফু দিতে হবে তাহলে উক্ত ব্যক্তি আপনার বশীভূত হবে এবং আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করবে।

আপনাদের যদি আমাদের এই আলোচনা সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থেকে থাকে বা আপনি যদি না বুঝে থাকেন তাহলে আপনি আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।  আমাদের সাথে যোগাযোগ করার জন্য আলাপন নামের যে অপশনটি রয়েছে সেখানে গিয়ে আপনারা আমাদের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবেন।

বি. দ্র: এই বশীকরণ মন্ত্র টি কখনোই কোনো খারাপ কোন উদ্দেশ্যে ব্যবহার করবেন না তাহলে আপনি নিজে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। এই কার্য্যটি সম্পন্ন করতে হলে আপনাকে অবশ্যই একজন গুরুর অনুমতি গ্রহণ করতে হবে। আর যদি কোন গুরুর অনুমতি সংগ্রহ করতে না পারেন তাহলে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। ধন্যবাদ।।