রুপবতী স্ত্রীকে বশীভূত করার মন্ত্রঃ

রুপবতী স্ত্রীকে বশীভূত করার মন্ত্রঃ

বিবরণঃ সুন্দরী স্ত্রীকে নিয়ে আপনি চিন্তায় থাকেন সবসময়, সারাক্ষণ শুধু মনে মনে ভয় হয়। আমি থাকি দূরে আর আমার রুপবতী স্ত্রী থাকে আমার গ্রামের বাড়ীতে কিংবা বাসায়, কেউ না কেউ আবার মনে হয় কোন ক্ষতি করার চেষ্টায় রয়েছে এমন মনে হলে। আপনি আপনার স্ত্রীকে বশীভূত করে রাখুন। কারণ আপনি যদি এই বশীকরণ প্রয়োগ টি একবার করেন তাহলে আর আপনার স্ত্রীকে শতচেষ্টা করলেও কেউ আর কোন ক্ষতি করতে পারবেন না। কারণ একটা মেয়েকে কেউ যদি কোন খারাপ উদ্দেশ্যেও আহ্বান করে তাহলে যদি সেই মেয়েলোকটি তার ডাকে সাড়া না দেয় তাহলে সেউ পুরুষের কোন কিছুই করার থাকে না। আর যদি সেউ মেয়েলোকটি তার কোন মায়ায় পড়ে তবেই তার ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা থাকে।। সুতরাং সবার স্ত্রী সবার কাছেই সুন্দর এটাই বড় কথা। আপনাদের কারোর মনের ভিতরে যদি এমন কোন কথা বা কল্পনা ভেসে আসে কিংবা স্ত্রীকে নিয়ে টেনশন করেন, অথবা আপনার এলাকার দুষ্ট ছেলেদের কারণে আপনি সমসময় ভয় করেন কে না কে আবার আপনার স্ত্রীকে অবৈধ প্রেমের মায়াজালে ফেলে ক্ষতি করার চেষ্টা করতেছে। এইরুপ সমস্যা দেখা দিলে অবশ্যই নিচের প্রয়োগটি করুন।।

মন্ত্রঃ-

পান পান মহাপান

এই পান খায়,

ফন্না ফন্নির মন

 এক হয়ে যায়।

জীয়েতে বহু

আর কৃষ্ণ চলে,

মহাদেব মহাদেবী

পড়ে ঢলে ঢলে।

পান পড়া না লাগে

যদি রুসুলুল্লা

খোদা কি এক তন

দে বারেক আল্লাহ্।

প্রয়োগ বিধিঃ- তিনবার এই মন্ত্রটি পড়ে একটি পানের উপরে তিনটি ফুঁ দিতে হবে। তারপর সেই পানটি যেকোন স্ত্রী লোককেই খাওয়াতে পারলেই সে আপনার বশীভুত হবে।।

বিঃদ্রঃ- উপরোক্ত মন্ত্রটি একটি গুরু মন্ত্র। প্রয়োগটি খুবই সহজ ও ফলদায়ক। তাই আপনারা এই মন্ত্রটি অসৎ কাজে ব্যবহার করবেন না। একমাত্র নিজের স্ত্রীর জন্যই এই কাজটি করা উচিত হবে। কাজটি করার পূর্বে অবশ্যই আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ও অনুমতি গ্রহণ করুন। কারণ অনুমতি ছাড়া কোনকাজেই ফলাফল আশা করা বৃথা। তাই সল্প হাদিয়া দিয়ে গুরুর অনুমতি গ্রহন করুন।