শক্ত হৃদয়ের নারী বশিকরন মন্ত্র

শক্ত হৃদয়ের নারী বশিকরন মন্ত্রঃ

 যে সকল মেয়ে লোক পুরুষ বা প্রেমিকদের চোখ রাঙিয়ে কথা বলে পুরুষ লোককে পাত্তাই দেয় না, পুরুষ লোক দেখলে এলার্জি মনে হয়, তাহলে এই সকল মেয়েদের পছন্দ করা তো দূরের কথা বিয়ে অসম্ভব। এই রকম চরিত্রের মেয়েদেরকে ও আবার অনেকেই পছন্দ করে ফেলেন অনেকেই। মনে মনে ভালবেসেও যায় তখন তো আর কোন উপায় থাকে না। তাই শক্ত ও রুগ্র মেজাজের মেয়েদের বশ করতে চাইলে নিচের মন্ত্রটি প্রয়োগ করুন।

মন্ত্র যথাঃ-

“চক্ষে চক্ষে করিলাম নজর বন্ধি,

এই নজর করিলাম শিশি তলসী বন্ধী।

রাম লক্ষণ ধনুকের বাণ

জিতা থাকলে খাট লালঙ্ক,

মইরা গেলে মহা শ্মশান ঘাট,

ছার ছার ছার, বাপ মার

ঘর গৃহ ছার।

স্বামীর ঘর গৃহ ছার।

আমারে ছাড়িয়া যদি

অন্য কোথাও যাস

দোহাই ঈশ্বর ত্রিশ কোটি

দেবতার মাথা খাস।”

মন্ত্রটি শিক্ষা করার নিয়মঃ একা একা তিন দিন রাত্রে তে- পথে বসে মন্ত্রটি শিক্ষা করিতে হইবে। মন্ত্র শিক্ষার তিন দিন মাছ ও গরুর মাংস খাওয়া নিষেধ। রবিবার ও বৃহস্পতিবার মন্ত্র পাঠ করা সম্পূর্ণ রুপে নিষেধ।

মন্ত্র ব্যবহারের নিয়মঃ যদি কাহারো স্ত্রী কথা না মানে বা স্বামী স্ত্রী মধ্যে  মিল না থাকে তবে উভয়ে এক জায়গায় বসে কিছু সময় আলাপ আলোচনা করিবেন ও মন্ত্রটি মনে মনে পনের-বিশ বার পাঠ করিবেন ততক্ষণাৎ স্ত্রী বা স্বামী যে তদবীর করে, তদবীরকারীর কথা মানিবে এবং সঙ্গে সঙ্গে চলে যাবে। যদি কেহ কোন মেয়েকে বিবাহ করতে চান তবে উপরোক্ত নিয়মে কাজ করিলে অবশ্যই আল্লাহর রহমতে কাজ হইবে। আমার অনুরোধ কাজে আসেলে তাহাকে বিবাহ করিবেন। হারামির কাজে মন্ত্র খাটাইলে কোন প্রকার কাজ হইবে না। ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা আছে।

(মন্ত্রটি কাজে লাগানোর পূর্বে অবশ্যই গুরুর অনুমতি গ্রহন করুন অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন ধন্যবাদ।)