স্বামী বশীকরণ টোটকা

স্বামী বশীকরণ টোটকাঃ

লজ্জাতুন নেছা.কম এর পক্ষ্য থেকে আপনাদের সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। প্রতিবারের মতো এবারও আমরা আরও একটি নতুন বিষয় নিয়ে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি আমাদের আজকের নতুন বিষয় স্বামী বশীকরণ টোটকা। এই টোটকাটির মাধ্যমে যে কোন স্ত্রী তার স্বামীকে সম্পূর্ণরূপে তার বশীভূত করতে পারবে।  কোন ক্ষেত্রে স্বামী যদি তার স্ত্রীর প্রতি দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনে অবহেলা করে বা তার স্ত্রীকে অবহেলা করে বা স্বামী যদি সংসারে মন না দিয়ে থাকে বা স্বামী যদি বাইরে কারও সাথে থাকতে পছন্দ করে তাহলে সে ক্ষেত্রে উক্ত স্ত্রী চাইলে এই টোটকা প্রয়োগ করে তার স্বামীকে তার বশীভূত করতে পারবে। অনেকের পরিবারে সুন্দরী স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও যেসব স্বামীরা পরস্ত্রীতে আসক্ত হয়ে থাকে তাদের জন্যই এই টোটকাটি ভিষণ কার্যকরী। তবে অবশ্যই আপনি খারাপ কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে এই টোটকা প্রয়োগ করতে যাবেন না। আপনি যদি এই টোটকা প্রয়োগ করতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই আমরা যে সমস্ত নিয়ম কানুনের কথা বলব সেগুলো কে সঠিক ভাবে পালন করতে হবে তাহলে চলুন এই টোটকাটির যাবতীয় বিষয় সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

উপকরন সমুহ:  আপনি যদি এই টোটকা প্রয়োগ করতে চান তাহলে আপনাকে কিছু প্রয়োজনীয় উপকরণ সংগ্রহ করতে হবে সে সম্পর্কে যাবতীয় বিষয় জেনে নেয়া যাক-  সাদা সরষে, তুলসী,  ধুতরা,  অঙ্গা,  তিলের তেল।

প্রয়োগ বিধি: আপনি যদি এই টোটকাটি প্রয়োগ করে আপনার স্বামীকে আপনার বশিভূত করতে চান! তাহলে প্রয়োজনীয় উপকরণ সমূহ সংগ্রহ করে অর্থাৎ তুলসী, ধুতরা, অঙ্গা, তিলের তেল এই সবগুলি একসাথে খুব ভালোভাবে পিষে নিতে হবে। তারপর মিশ্রণ গুলি স্ত্রী তার নিজ দেহে লাগিয়ে তার স্বামীর কাছে বা তার সামনে যাওয়া মাত্রই সে আপনার  বশীভূত হবে হবে।

বিঃদ্রঃ- উপরোক্ত টোটকাটি ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই আলোচনাটি খুব মনযোগ সহকারে দেখে নিন ও প্রয়োগ করুন। যদি সঠিক প্রয়োগের অভাবে কোন ব্যঘাত ঘটে তাহলে লজ্জাতুন নেছা প্রতিষ্ঠানটি কোন ভাবে দায়ী থাকবে না। ধন্যবাদ।